Follow the rules of building regulation                Pay tax regularly                Keep Your Town Clean                Prevent the Wastage of Water                Put Solid Waste at the Particular Place                Entry the new born Child                Plant more Tree and make sound the Environment                Emergency Contact: Fax 08626-71250, Phone: 0862671250/0862672092                E-mail Address: sreemangalmunicipality@gmail.com/sreemangalmunicipality@yahoo.com               

GAP
স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর
স্থানীয় সরকার বিভাগ
স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়

দ্বিতীয় নগর পরিচালন ও অবকাঠামো উন্নতিকরণ (সেক্টর) প্রকল্প (টএওওচ-২)

জেন্ডার এ্যাকশন প্ল্যান (GAP)
শ্রীমঙ্গল পৌরসভা



 
প্রকল্প ব্যবস্থাপনা অফিস

দ্বিতীয় নগর পরিচালন ও অবকাঠামো উন্নতিকরণ (সেক্টর) প্রকল্প (UGIIP-2) এলজিইডি ভবন, আগারগাঁও, ঢাকা-১২০৭। ফোন : ০২-৯১৪৩৯৯৩ ই-মেইল- pd.ugiip2@yahoo.com



অর্থায়নে : বাংলাদেশ সরকার, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক, কেএফডব্লিউ, জিটিজেড


 
 
১. সূচনা

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন নিয়ে কাজ শুরু করলেও বর্তমানে নগর উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখছে। সাম্প্রতিককালে বাংলাদেশ সরকার এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (ADB), কেএফডাব্লিউ (KFW) এবং জিটিজেড (GTZ) এর আর্থিক সহায়তায় দ্বিতীয় নগর পরিচালন এবং অবকাঠামো উন্নতিকরণ (সেক্টর) প্রকল্প (UGIIP 2) গ্রহণ করেছে। নগর সুপরিচালনের মাধ্যমে মানব সম্পদ উন্নয়নসহ টেকসই ভৌত অবকাঠামো সুবিধাদির উন্নয়নই এ প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য।

পৌরসভা পর্যায়ে সামাজিক ও জেণ্ডার বিষয়গুলিকে পৌরসভার সামগ্রিক পরিচালনায় অন্ত্মর্ভূক্ত করে সেবা কর্মসূচী পরিচালনা করার জন্য একটি জেণ্ডার এ্যাকশন প্লান (GAP) প্রণয়ন করা হয়েছে। পৌরসভার সকল পর্যায়ে নারী পুরুষ সমতা অর্জনের অগ্রগতি নির্ভর করে GAP এর সফল ও কার্যকর বাস্তবায়নের উপর। GAP এর সঠিক বাস্তবায়ন হলে আশা করা যায় পৌর এলাকার নারী-পুরুষ পৌরসভা প্রদত্ত সেবা সমূহ থেকে সমভাবে উপকৃত হবে এবং সুষম উন্নয়নে অগ্রগতি হবে। তাই এ প্রকল্পে নারী-পুরুষ সমতা বিষয়টিকে অধিক গুরুত্ব দিয়ে এর আওতায় জেণ্ডার এ্যাকশন প্লান কে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।

 
 
নগর পরিচালন ও অবকাঠামো উন্নতিকরণ প্রকল্প-২ (UGIIP-II) এর আওতাধীন
জেন্ডার এ্যাকশন প্ল্যান (GAP)
শ্রীমঙ্গল পৌরসভা
For PIU, UGIIP-II, LGED
ক্রমিক নং কর্মতৎপরতা
(Activities)
করণীয় (বাস্তবায়ন প্রণালী)
Task (Implementation Modality) (PMO)
করণীয় বিষয়সমূহ বাস্তবায়নের পদক্ষেপসমূহ
(Steps for task implementation)
১ । একজন নারী কাউন্সিলরের নেতৃত্বে পৌরসভার 'জেণ্ডার ' কমিটি গঠন।

১। নিম্নে বর্ণিত উপায়ে জেণ্ডার কমিটি গঠন করা হয় :

অ. কমিটির আকার
ক) চেয়ারপার্সনঃ মহিলা ওয়ার্ড কাউন্সিলর (সংরক্ষিত আসনের সংখ্যা অনুযায়ী এক বা দুই বছর অন্তর চেয়ারপার্সন পালাক্রমে পরিবর্তন হবে);
খ) সদস্যঃ অন্য মহিলা ওয়ার্ড কাউন্সিলরগণ (FWCs);
গ) সদস্যঃ ২-৩ জন পুরুষ কাউন্সিলর (১-২ বছর অন্ত্মর পালাক্রমে পরিবর্তন হবে); এবং
ঘ) সদস্য সচিবঃ মেয়র কর্তৃক মনোনীত স্বাস্থ্য কর্মকর্তা/বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা/সংশ্লিষ্ট অন্য কোন ষ্টাফ।
নোটঃ
১. কার্যপরিধি উল্লেখসহ জেণ্ডার কমিটি গঠনের প্রজ্ঞাপন জারি করা;
২. কমিটির সকল সদস্যকে এর আকার এবং TOR এর সম্পর্কে অবহিত করণ










আ. কার্যপরিধি (TOR)
ক) প্রতিমাসে ১টি করে সভা করা এবং নিয়মিতভাবে কার্যবিবরণী লিপিবদ্ধ করা;
খ) সংশ্লিষ্ট ফোরামে জেণ্ডার কমিটির কার্যক্রম উপস্থাপন করা।
গ) প্রকল্পের আওতায় প্রণীত সংক্ষিপ্ত ধারণামূলক জেন্ডার এ্যাকশন প্ল্যানের পুনরীক্ষণ করা, জেন্ডার মূল ধারার সাথে সম্পর্কিত সমস্যা নিয়ে আলোচনা এবং পৌরসভা উন্নয়ন পরিকল্পনায় অন্তর্ভূক্তির জন্য জেন্ডার এ্যাকশন প্লান তৈরীর অনুশীলনে পৌরসভাকে সহায়তা করা;
ঘ) জেণ্ডার সমতা সংক্রান্ত বিষয় চিহ্নিত করা এবং জেণ্ডার ও  GAP কার্যক্রম সম্পর্কে কমিউনিটি, সরকারী প্রতিষ্ঠান, এনজিওসহ পৌরসভার ভূমিকা চিহ্নিত করা;
ঙ) পিডিপিতে বর্ণিত সংশ্লিষ্ট সকল কার্যক্রমের বাস্তবায়ন ও পরিবীক্ষণে সহায়তা করা।
চ) জেন্ডার বিষয়ক বাজেট প্রণয়ন করা ও বরাদ্দের সুপারিশ করা।

 

জেন্ডার কমিটির কাঠামো ও কার্যপিরিধি নিয়ে মেয়র এবং সকল কাউন্সিলরের মধ্যে সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সকল মহিলা কাউন্সিলর ও তিন জন পুরুষ কাউন্সিলর এবং মেয়র কর্তৃক মনোনীত স্বাস্থ্য কর্মকর্তা/বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা/ সংশ্লিষ্ট স্টাফ নিয়ে শ্রীমঙ্গল পৌরসভায় জেন্ডার কমিটি গঠিত হয়।

পৌরসভা পরিপত্র জারীর মাধ্যমে জেণ্ডার কমটিরি কার্যপরিধি সবাইকে অবহিত করে।

পৌর পরিষদে আলোচনার মাধ্যমে মেয়র কর্তৃক চেয়ারপার্সন নির্বাচন করা হয়।

পৌরসভা জেন্ডার কমিটির লক্ষ্য অর্জনে চেয়ারপার্সনকে সহযোগিতা প্রদানের জন্য জেণ্ডার কমিটির সদস্য হিসাবে ২-৩ জন পুরুষ কাউন্সিলরকে মনোনয়ন দেয়া হয় যারা কিনা প্রগতিশীল এবং নারী ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর উন্নয়নের জন্য কাজ করতে আগ্রহী।

মেয়র ও জেণ্ডার কমিটির চেয়ারপার্সন লক্ষ্য রাখবেন যেন কমিটির সকল সদস্যদের নিজস্ব কার্যপরিধি সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা থাকে।

পৌর পরিষদের মাসিক সভায় জেণ্ডার কমিটির কার্যক্রম নিয়ে জেণ্ডার কমিটির চেয়ারপারসন আলোচনা করবেন।

জেণ্ডার কমিটি নিয়মিতভাবে মাসিক সভা করবে, সভার কার্যবিবরণী তৈরী করবে।

কমিটি সকল সভার শুরুতে পূর্ববর্তী সভার কার্যবিবরণী এবং গৃহীত সিদ্ধান্তসমূহ পর্যালোচনা করে অনুমোদন করবে।

২ । নারী প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করে ওয়ার্ড লেভেল কো-অর্ডিনেটিং কমিটি (WLCC) গঠন ও নির্দেশনা (Guidelins) অনুসরণে কার্যক্রম পরিচালনা।


নিন্মে উল্লেখিত আকৃতি (Composition) ও কার্যপরিধি (TOR) সহকারে স্থানীয় সরকার (পৌরসভা)আইন, ২০০৯ এর ২য় ভাগ, ২য় অধ্যায় এর ১৪ নং ধারা এর প্রয়োজনের সাথে মিল রেখে প্রকল্পের আওতায় প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ার্ড সমন্বয় কমিটি গঠন করা।


অ. কমিটির আকার (১০ সদস্যের বেশী হবে না ) নিন্মরূপঃ
ক. সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের কাউন্সিলর - সভাপতি
খ. ঐ ওয়ার্ডের (সংরক্ষিত আসন) মহিলা কাউন্সিলর - সহ-সভাপতি
গ. বস্তির প্রতিনিধি - সদস্য
ঘ. নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি (NGO, CBO)
পেশাজীবি সংগঠন/নাগরিক দল (নারীসহ) - সদস্য
ঙ. স্কুল শিক্ষক - সদস্য
চ. সহকারী প্রকৌশলী/উপ-সহকারী প্রকৌশলী
হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা/কর আদায়কারী/ বস্তি
উন্নয়ন কর্মকর্তা (মেয়রকর্তৃক মনোনীত) -সদস্য সচিব
নোট-১:
১. মোট সদস্য সংখ্যার শতকরা ৪০ (চল্লিশ) ভাগ নারী সদস্য থাকবেন; এবং
২. দরিদ্রদের প্রতিনিধিত্বকারী কমপক্ষে ২ জন প্রতিনিধি ওয়ার্ড সমন্বয় কমিটিতে (WLCC) সদস্য হিসাবে অন্তর্ভুক্ত হবেন।
নোট-২:
১. গঠিত WLCC-পৌরসভার মাসিক সভায় অনুমোদিত হতে হবে;
২. কার্যপরিধিসহ WLCC গঠনের বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা এবং পৌর পরিষদ কর্তৃক অনুমোদনের পর এর কার্যপরিধি (TOR) সংশ্লিষ্ট সকলকে অবহিত করা; এবং
৩. WLCC-র সকল সদস্যকে এর গঠন ও কার্যপরিধি সম্পর্কে অবহিত করা।


কার্যপরিধি (TOR):
১. ওয়ার্ডের সকল শ্রেণীর নাগরিকের সংশ্লিষ্টতা ও স্বার্থ রক্ষা নিশ্চিত করে প্রকল্পের ১ম ধাপে পৌরসভা উন্নয়ন পরিকল্পনা (PDP) তৈরীর জন্য ধারাবাহিকভাবে অনেকগুলো পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠান করা এবং ওয়ার্ড পর্যায়ের উন্নয়ন দর্শন (Vision) অনুশীলন করা;
২. পৌর প্রশাসন ও উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে অন্তর্ভূক্ত করার লক্ষ্যে ওয়ার্ডের নাগরিকগণকে আমন্ত্রণ করে উন্মুক্ত সভার আয়োজন করা;
৩. ওয়ার্ডের অবকাঠামো ও সেবা সমূহের বিতর্কিত বিষয় ও সমস্যা নিয়ে কাউন্সিলরের মাধ্যমে TLCC তে উপস্থাপন করা;
৪. ওয়ার্ডের কর (Tax) এবং ব্যবহারিক (User Charge) ফি পরিশোধের জন্য জনসচেতনতা বৃদ্ধিমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা;
৫. ওয়ার্ড সমন্বয় কমিটিকে কতিপয় নির্ধারিত সেবা যেমন পানি সরবরাহ, কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ইত্যাদির পরিচালনা ও ব্যবস্থাপনায় অন্তর্ভুক্ত করা;
৬. ওয়ার্ডের অন্যান্য সংশ্লিষ্ট বিষয় যেমন পরিবেশ, স্বাস্থ্য ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থা, আইন শৃঙ্খলা, জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন ইত্যাদির সাথে সম্পর্কিত বিষয় নিয়ে কাজ করা;
৭. কমপক্ষে ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে WLCC এর সভা করা, কার্যবিবরণী লিপিবদ্ধ করা, এবং পরবর্তী সভাসমূহে পূর্ববর্তী সভার কার্যবিবরণী আলোচনা ও গৃহীত সিদ্ধান্ত সমূহের বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ করা এবং এরূপ কার্যক্রম অব্যাহতভাবে চালু রাখা;
৮. কমিউনিটি ভিত্তিক সংস্থা (CBO)/বস্তি উন্নয়ন কমিটি (SIC) গঠনে সক্রিয় অংশগ্রহণ এবং এর বিতর্কিত বিষয় ও সমস্যা নিয়ে ওয়ার্ড সমন্বয় কমিটিতে আলোচনা এবং সমাধান খুঁজে বের করা; এবং
৯. বস্তি বহির্ভূত দরিদ্র এলাকায় (CBO) এবং বস্তিতে গঠিত (SIC) এর কার্যক্রম তত্ত্বাবধান করা এবং ওয়ার্ড সমন্বয় কমিটির সভায় কমিউনিটির সংশ্লিষ্ট প্রতিনিধির উত্থাপিত বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আলোচনা এবং সমাধানের ধারণা দেওয়া।


WLCC এর গঠন ও কার্যপরিধি নিয়ে মেয়র এবং ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের মধ্যে আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে।

স্থানীয় জনগণ ও সংশ্লিষ্ট বিভাগসমূহের সাথে যোগাযোগের মাধ্যমে পৌরসভা WLCC তে ৪০% নারী সদস্যদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করবে।

বিশেষ করে সুবিধা বঞ্চিত নারী এবং দরিদ্র ও অনগ্রসর জনেেগাষ্ঠী থেকে নারী সদস্যদের প্রতিনিধিত্ব WLCC তে নিশ্চিত করতে হবে।

পৌরসভা WLCC এর গঠন ও কার্যপরিধি পরিপত্র জারীর মাধ্যমে সকলকে অবহিত করবে।

৩ ।
৩ টাউন লেভেল কো-অর্ডিনেটিং কমিটি (TLCC) গঠন এবং নির্দেশাবলী (Guidelines) অনুসরণে কার্যক্রম পরিচালনা।


নিন্মে উল্লেখিত আকৃতি (Composition) ও কার্যপরিধি (TOR) সহকারে প্রকল্পের আওতায় নগর সমন্বয় কমিটি (TLCC) গঠন করাঃ


অ. কমিটির গঠন (৫০ সদস্যের বেশী হবে না)
ক) মেয়র - চেয়ারপার্সন
খ) সকল কাউন্সিলর - সদস্য
গ) সহযোগী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি - সদস্য
(জেলা প্রশাসন, , LGED, DPHE, RHD, PDB, PWD, T&T, etc.)
ঘ) পেশাজীবি প্রতিনিধি - সদস্য
ঙ) নাগরিক সমাজ/NGO প্রতিনিধি - সদস্য
চ) নারী প্রতিনিধি - সদস্য
ছ) নগর দরিদ্র জনগোষ্ঠির প্রতিনিধি - সদস্য
জ) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা - সদস্য সচিব


নোট-১:
১। প্রতি ওয়ার্ড থেকে ১-৩ জন সদস্য মনোনীত করা।
২। কমপক্ষে মোট সদস্যের ১/৩ অংশ নারী সদস্য।
৩। TLCC তে ২ জন নারীসহ কমপক্ষে ৭ জন দরিদ্র জনগোষ্ঠির প্রতিনিধির অন্তর্ভুক্তি নিশ্চিত করা।
৪। TLCC র সদস্য চূড়ান্তভাবে নির্বাচনের পূর্বে সম্ভাব্য যোগ্য নাগরিকদের সাথে যোগাযোগ করে অন্তর্ভূক্তিতে তাদের আগ্রহ জানা।
৫। প্রতিষ্ঠানের ভূমিকার গুরুত্ব বিবেচনায় রেখে সহযোগী প্রতিষ্ঠান (Line Department) চিহ্নিত করা।
নোট-২:
১। পৌর পরিষদে TLCC র আকৃতি ও কার্যপরিধির বিষয় নিয়ে আলোচনা এবং পৌর পরিষদ সভায় অনুমোদন করা।
২। কার্যপরিধি TOR সহ TLCC গঠনের বিষয়ে নোটিফিকেশন জারি করা।
৩। TLCC এর সকল সদস্যকে কমিটির আকৃতি ও কার্যপরিধির বিষয় সম্পর্কে অবহিত করা।


ধাপ-১ এর কার্যপরিধি (TOR ) :
ক) নারীদের পরিকল্পনা প্রণয়ন প্রক্রিয়ার বিভিন্ন পর্যায়ে অংশগ্রহণের লক্ষ্যে সচেতন করা সহ (যেমন সিটিজেন রিপোর্ট কার্ড ও অন্যান্য প্রশ্নাবলীর উত্তরের মাধ্যমে) পৌরসভা উন্নয়ন পরিকল্পনা (PDP) তৈরীর বিষয় আলোচনার উদ্যোগ নেয়া;
খ) পিডিপি প্রণয়ন নির্দেশিকা অনুসরণে পিডিপি প্রণয়নের বিষয় অগ্রগতি, সহযোগিতা ও তত্ত্বাবধান এবং মনিটরিং করা।
গ) পরামশর্কদের সহায়তায় পিডিপি তৈরীর সাথে সম্পর্কিত করণীয় কাজের অগ্রগতির জন্য TLCC সদস্যদের সমন্বয়ে একটি Core Group তৈরী করা।

ঘ) পিডিপি নির্দেশিকা অনুসরণে সেক্টরের করণীয়সমূহের প্রয়োজনীয়তা চিহ্নিত এবং অগ্রাধিকার তৈরীর অগ্রগতির জন্য সেক্টর ভিত্তিক কার্যসম্পাদনকারী দল (Working Group) গঠন।
ঙ) কমিটি গঠনের ১৫ দিনের মধ্যে TLCC র ১ম সভা অনুষ্ঠান করা।
চ) কম পক্ষে তিনটি সভা করা এবং প্রতিটি সভার কার্যবিবরণী তৈরী করা।
ছ) পিডিপি নির্দেশিকা অনুযায়ী এর সকল অংগের অন্তর্ভুক্তিসহ পিডিপি চূড়ান্তকরণ সমন্বয় করা:
জ) পৌরসভা কর্তৃক তৈরীকৃত GAP1এবং PRAP2 নিয়ে আলোচনা করা এবং পিডিপিতে অন্তর্ভুক্তির জন্য অনুমোদন করা।
ঝ) CBO3 গঠন ও অনুমোদন বিষয়ে আলোচনা করা এবং CBO কার্যক্রমের অগ্রগতি ও সমস্যা পর্যালোচনা করা,
ঞ) নারী ও দরিদ্র প্রতিনিধিসহ TLCC এর সকল সদস্যদের অংশগ্রহণে PDP   তৈরীর জন্য ধারাবাহিকভাবে অনেকগুলো পর্যালোচনা সভা করা এবং পৌর পরিষদের অনুমোদনের জন্য PDP   চূড়ান্ত করা;
ট) সকল টিএলসিসি আলোচনা ও সিদ্ধান্তসমূহের বাস্তবায়নের অবস্থা আলোচনা করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা এবং এ ব্যবস্থা চালিয়ে যাওয়া।
TLCC ত্রৈমাসিক সভা করবে।


ধাপ-২ এর কার্যপরিধি (TOR) :
ক) পৌরসভার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনার জন্য একটি ফোরাম হিসাবে কাজ করা এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণে জনগণের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা;
খ) পৌরসভা সংক্রান্ত সমস্যাদি চিহ্নিতকরণ এবং সমস্যা সমাধানের জন্য পরামর্শ দেওয়া;
খ) ওয়ার্ড পর্যায়ের সমন্বয় কমিটি (WLCC) কর্তৃক চিহ্নিত সমস্যা এবং সমাধানের জন্য দেওয়া পরামর্শসহ আলোচনা এবং সমস্যার সমাধানের উপায় খুঁজে বের করা;
ঘ) সমস্যা সমাধানের জনগণের ভূমিকা চিহ্নিতকরণ (বিশেষভাবে নারী নাগরিকবৃন্দের সুনির্দিষ্ট ভূমিকা নিশ্চিতকরণ);
ঙ) পৌরসভা কেন্দ্রিক উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে সহযোগিতা ও সহায়তা দানে জেলা প্রশাসন, আরএইচডি, বিআরটিএ, পিডব্লিঊডি, পিডিবি, ডিপিএইচই, এলজিইডি ইত্যাদি সংস্থাকে অন্তর্ভুক্ত করার উপায় ও পন্থা খুঁজে বের করা;
চ) পৌরসভার কর আদায়ের বর্তমান অবস্থা এবং অন্যান্য উৎস হতে আদায়ের অবস্থা নিয়ে আলোচনা করা এবং রাজস্ব আদায় বৃদ্ধির জন্য সঠিক ও কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা;

ছ) সরকারের নিকট ওকালতি (Advocacy) করার জন্য নগর নীতিমালা সংস্কার বিষয়ক প্রস্তাব প্রণয়ন করা;
জ) পৌরসভা কর্তৃক তৈরীকৃত খসড়া নাগরিক সনদ (Citizen Charter) এবং সিটিজেন রিপোর্ট কার্ড নিয়ে আলোচনা করা এবং TLCC র সভায় অনুমোদন করা;
ঝ) পৌরসভা অফিসে অনুমোদিত সিটিজেন চার্টার প্রদর্শন চিশ্চিত করা এবং সিটিজেন রিপোর্ট কার্ডের কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা;
ঞ) পূর্ববর্তী বছরের বাজেট ও বরাদ্দের সাথে তুলনামূলক বাজেট প্রস্তাব TLCC তে আলোচনা এবং পৌর পরিষদের অনুমোদন প্রক্রিয়ায় পরামর্শ ও দিক নির্দেশনা বা মতামত প্রদান করা;
ট) নির্ধারিত সময় ভিত্তিক কার্যপরিধিসহ কোন নির্দিষ্ট ক্ষেত্রের জন্য (প্রয়োজন হলে) টাস্কফোর্স গঠন করা;
ঠ) GAP এবং PRAP বাস্তবায়ন বিষয় আলোচনা করা এবং পৌরসভা কর্তৃক গৃহীতব্য করণীয় বিষয় সম্পর্কে পরামর্শ দেয়া;
ড) CBO কার্যক্রমের অগ্রগতি ও সমস্যা নিয়ে আলোচনা এবং পৌরসভা ও সংশ্লিষ্ট CBO এর করণীয় বিষয়ে পরামর্শ দেয়া;
ঢ) আলোচনা এবং সিদ্ধান্তসমূহ কার্যবিবরণী হিসাবে লিপিবদ্ধ করা এবং পরবর্তী সভাসমূহে সিদ্ধান্তসমূহ বাস্তবায়নের অবস্থা এবং অগ্রগতি পর্যালোচনাসহ অনুরূপ কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া।


এক তৃতীয়াংশ নারী অন্তর্ভূক্তি নিশ্চিত করে TLCC গঠন করতে হবে এবং পৌরসভা নিশ্চিত করবে যে TLCC এর নারী সদস্যরা তাদের অধিকার, দায়িত্ব ও কর্তব্য সর্ম্পকে যথারীতি অবগত আছে।

TLCC নিশ্চিত করবে যে নারী সদস্য সভায় সক্রিয় অংশগ্রহণ করছে ও সিদ্ধান্ত গ্রহণে মতামত প্রদান করছে।

TLCC তে দুই জন নারীসহ কমপক্ষে ৭ জন দরিদ্র জনগোষ্ঠির প্রতিনিধির অন্তর্ভূক্তি হয়েছে কি না পৌরসভা তা নিশ্চিত করবে।

সুষ্ঠুভাবে কাজ সম্পাদনের জন্য কমিটির পুরুষ সদস্যরা নারী সদস্যদের যথাসাধ্য সহযোগিতা করবেন।

TLCC এর প্রত্যেক সভায় জেণ্ডার কমিটির সভার কার্যবিবরণী আলোচিত হবে এবং যদি কোন পদক্ষেপ নেওয়ার প্রয়োজন হয় তাহলে সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিবে।

TLCC এবং WLCC যেন তাদের গৃহীত সিদ্ধান্তসমূহ জেণ্ডার সংবেদনশীল (মবহফবৎ ৎবংঢ়ড়হংরাব) উপায়ে নেয় এবং সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে নারীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করে সে ব্যাপারে জেণ্ডার কমিটি বিশেষ লক্ষ্য রাখবে।

GAP এবং PRAP নির্দেশিকা অনুসারে নারী বান্ধব সুবিধাদি বাস্তবায়িত হচ্ছে কি না সে বিষয়ে TLCC লক্ষ্য রাখবে।

৪ । স্থানীয় সরকার আইন ২০০৯ অনুসারে স্থায়ী কমিটিতে নারীদের অন্তর্ভূক্তি এবং পরিপত্র ২০০২-এ উল্লেখিত দায়িত্ব সমূহ নারী ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের মধ্যে ঠিকমত বন্টন।


স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) আইন ২০০৯ অনুসারে নারীদের অন্তর্ভূক্ত করে নিন্মলিখিত স্থায়ী কমিটিসমুহ গঠন করা হবে।

ক) সংস্থাপন ও অর্থ
খ) কর নিরূপন ও আদায়
গ) হিসাব ও নিরীক্ষা
ঘ) নগর পরিকল্পনা, নাগরিক সেবা ও উন্নয়ন
ঙ) আইন শৃংক্ষলা ও জন নিরাপত্তা
চ) যোগাযোগ ও ভৌত অবকাঠামো
ছ) মহিলা ও শিশু
জ) মৎস ও পশু সম্পদ
ঝ) তথ্য ও সংস্কৃতি এবং
ঞ) বাজার মুল্য পর্যবেক্ষন, মনিটরিং ও নিয়ন্ত্রন ইত্যাদি

প্যানেল মেয়র হিসাবে FWC দের নির্বাচিত করা।

২৩-৯-২০০২ ইং (স্মারক নং-পৌর-২/পরি-৩/৯৮/৯৬১) পরিপত্র অনুযায়ী ওয়ার্ড ভিত্তিক নিম্নলিখিত কমিটিগুলি গঠন করা প্রয়োজনঃ

১. আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটিঃ সাধারণ আসনের কমিশনার সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি ও বিভিন্ন পেশাজীবির সমন্বয়ে ওয়ার্ডের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটি গঠন করবেন। সাধারণ আসনের কমিশনার উক্ত কমিটির সভাপতি এবং সংরক্ষিত আসনের কমিশনার হবেন উক্ত কমিটির উপদেষ্টা। এই কমিটির দায়িত্ব হবে ওয়ার্ড এলাকার আইন শৃঙ্খলা রক্ষা, অপরাধ, বিশৃঙ্খলা ও চোরাচালান দমনার্থে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ এবং এ সংক্রান্ত বিষয়ে পৌরসভাকে অবহিত করা। এছাড়া কমিটি অপরাধমূলক ও বিপজ্জনক ব্যবসা সম্পর্কে পৌরসভাকে অবহিত করবে।

২. ওয়ার্ড দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটিঃ সাধারণ আসনের কমিশনার সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি ও যুবসমাজসহ বিভিন্ন শ্রেণীর প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে ওয়ার্ড দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠন করবেন। সাধারণ আসনের কমিশনার উক্ত কমিটির সভাপতি এবং সংরক্ষিত আসনের কমিশনার উপদেষ্টা হবেন। তাঁরা অগ্নি, বন্যা, খরা, শিলাবৃষ্টিসহ ঝড়, ভূমিকম্প, জলোচ্ছ্বাস ও অন্যান্য প্রাকৃতিক দুর্যোগ সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করবেন এবং প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।


৩. নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ, যৌতুক ও এসিড নিক্ষেপ নিরোধ, বাল্য বিবাহ রোধঃ এই সংক্রান্ত যে কমিটি গঠিত হবে সেই কমিটির চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করবেন সংরক্ষিত আসনের (নারী) ওয়ার্ড কমিশনার।


PMO জেণ্ডার কমিটির চেয়ারপার্সন এবং একজন সদস্যের (পর্যায়ক্রমে সবাই) জন্য প্রতি তিনমাস অন্তর রিফ্রেসারস কোর্সের আয়োজন করবেন। এখানে তারা নিজেদের কাজের অভিজ্ঞতা অন্যদের সাথে আলোচনার সুযোগ পাবে এবং নিজেদের জ্ঞান ও দক্ষতা বৃদ্ধি করতে পারবে।

পৌরসভা গুনগত নেতৃত্ব সম্পন্ন মহিলা কাউন্সিলরকে প্যানেল মেয়র তালিকাভূক্ত করবে।

মেয়র পৌরসভার স্থায়ী কমিটি সমুহে মহিলা কাউন্সিলর এক তৃতীয়াংশ প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করবেন।

এই কমিটিগুলো তাদের কর্ম পরিকল্পনা জেণ্ডার সংবেদনশীল করার জন্য জেণ্ডার কমিটির সাথে আলোচনা করবে।

কমিটি সমুহ এবং পৌরসভার সকল কর্মকান্ড জেন্ডার সংবেদনশীল নির্দেশনা সূচক দিয়ে পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন করতে হবে।

পৌরসভার নাগরিক সনদে নারীদের উপযোগী সেবা সম ূহ অন্তর্ভূক্ত করতে হবে।

৫ ।

 

পৌরসভার নারী ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও ষ্টাফদের সুশাসন প্রতিষ্ঠায় ও অংশগ্রহণের ক্ষেত্রে সামর্থ্য তৈরী করণের জন্য প্রশিক্ষণ প্রদান।


সুশাসন প্রতিষ্ঠায় মহিলা কাউন্সিলর ও ষ্টাফদের সামর্থ্য তৈরী করা প্রয়োজন। সামর্থ্য তৈরীর জন্য প্রশিক্ষণের বিকল্প কিছু নেই। সুতরাং পৌরসভা কর্তৃপক্ষ তাঁর আওতাধীন সকল নারী কাউন্সিলর ও ষ্টাফদের প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ বাধ্যতামূলক করবেন এবং কতজন প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত হয়েছেন তা পরিবীক্ষণ করবেন। প্রশিক্ষণ বহির্ভূতদের জন্য ভবিষ্যতে পুনরায় প্রশিক্ষণের আয়োজন করতে হবে।
প্রশিক্ষণের মাধ্যমে নারী কর্মকর্তা কর্মচারীদের দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে GAP ও PRAP বাস্তবায়নে তাদের দায়িত্ব সম্পর্কে প্রশিক্ষন প্রদান করা।
মেয়রসহ সকল কাউন্সিলরদের GAP উপর প্রশিক্ষণ প্রদান এবং নিয়মিত রিফ্রেসার্স প্রশিক্ষনের আয়োজন করা।

মহিলা কাউন্সিলরদের GAP বাস্তবায়ন এবং এবিষয়ে তাদের দায়িত্ব সম্পর্কে প্রশিক্ষন প্রদান করা।


নারীদের অন্তর্ভূক্ত করে পৌরসভা তার কাউন্সিলর এবং পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য সকল প্রশিক্ষণের একটি তালিকা প্রস্তুত করবে।

মেয়র পর্যায়ক্রমে কাউন্সিলর ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের তাদের কাজের ক্ষেত্র সংশ্লিষ্ট প্রশিক্ষণ নিশ্চিত করবেন।

পৌরসভা প্রশিক্ষনে তাদের কার্যকর অংশগ্রহণ এবং তারা কিভাবে অর্জিত জ্ঞানকে পরবর্তীতে তাদের কাজে বাস্তবায়ন করছে সে বিষয়ে পরিবীক্ষণ করবে।

প্রশিক্ষনার্থীর তালিকা প্রস্তুত এবং প্রশিক্ষণ কারিকুলাম/ মডিউল প্রস্তুত করতে হবে।

প্রশিক্ষণে প্রয়োজনীয় জেণ্ডার বিষয়ক উপকরণ তৈরী করার জন্য জেণ্ডার কমিটি UGIIP -2 এর সহায়তাকারী এবং জেণ্ডার পরামর্শকের সাথে একসাথে কাজ করবে।

কমপক্ষে ২ দিনের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করা।

প্রশিক্ষনের মাধ্যমে অর্জিত জ্ঞান UGIAP ও GAP বাস্তবায়নে কি ভূমিকা রেখেছে তার মূল্যায়ন করা।

বছরে কমপক্ষে ১ বার রিফ্রেসার্স প্রশিক্ষনের আয়োজন করা।

৬ । নারী উন্নয়নের জন্য সুনির্দিষ্ট কার্যক্রম চিহ্নিত ও জেণ্ডার এ্যাকশন প্লানে অন্তর্ভূুর্ক্ত করে বাজেট বরাদ্দ করা। উক্ত কার্যক্রম বাস্তবায়নের জন্য অনুমোদন প্রদান ও পরিবীক্ষণ করা। সঠিকভাবে কার্যক্রম বাস্তবায়িত হচ্ছে কিনা তা পরিবীক্ষণ করে দেখতে হবে। পৌরসভার জেণ্ডার এ্যাকশন প্লানে অন্তর্ভুক্ত কার্যক্রম সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে এবং পৌরসভা জেণ্ডার এ্যাকশন প্লানে বর্ণিত কার্যক্রম বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় বাজেট বরাদ্দ করবে।


সমগ্র পৌরসভার জেন্ডার সমতা উন্নয়নের লক্ষ্যে পৌরসভায় গঠিত সকল কমিটি সমুহ যেমনঃ TLCC, WLCC, CBO, SIC (Slum Improvement Committee) এর কাজের ক্ষেত্রসমূহ জেণ্ডার কমিটি পর্যালোচনা করবে এবং প্রযোজ্য ক্ষেত্রে এর সদস্যদের জন্য দক্ষতার উন্নয়ন, সচেতনতা বৃদ্ধি ইত্যাদির জন্য পরামর্শ দেবে।
পৌরসভার উন্নয়ন পরিকল্পনার সাথে সমন্বয় করে এ সকল কাজকে জেণ্ডার কর্মপরিকল্পনার অন্তর্ভূক্ত করতে হবে।

জেণ্ডার কমিটি গঠনের পরে পৌর পরিষদ ও সংশ্লিষ্ট পৌরসভা কর্মী যারা পৌরসভা উন্নয়ন পরিকল্পনা তৈরীতে নিযুক্ত তাদের জন্য প্রকল্প ব্যবস্থাপনা অফিস পৌরসভা পর্যায়ে একটি কর্মশালার আয়োজন করবে। এখানে অংশগ্রহণকারীরা জেণ্ডার সম্পর্কে কিছু মৌলিক ধারনা পাবে এবং পৌরসভার কাজে জেণ্ডার বিষয়ক কাজের গুরুত্ব অনুধাবন করতে পারবে।

জেণ্ডার কমিটি জেণ্ডার কর্মপরিকল্পনার অন্তর্ভূক্ত কাজগুলো বাস্তবায়নের জন্য প্রতি বছর বাজেট প্রস্তত করবে এবং পৌরসভার বাজেট অনুশীলন শুরু হওয়ার পূর্বে তা পৌরসভাতে জমা দিবে।

জেণ্ডার কর্মপরিকল্পনার অন্তর্ভূক্ত কাজগুলো বাস্তবায়নের জন্য জেণ্ডার কমিটি পৌরসভার সাথে প্রয়োজনীয় বাজেট বরাদ্দের ব্যাপারে সমঝোতা করবে।

সকল কমিটি এবং পৌরসভার জেন্ডার সর্ম্পকিত কাজের জন্য মেয়র (কমপক্ষে সমগ্র বাজেটের ২-৩%) অর্থ বরাদ্দ নিশ্চিত করবেন।

মহিলা কাউন্সিলরগণ পৌরসভার সকল কর্মকান্ডের জন্য বাজেট বরাদ্দ প্রক্রিয়ায় অংশ নেবে এবং জেণ্ডার পরিকল্পনার এর সাথে সমন্বয় করতে চেষ্টা করবে।

জেন্ডার পরিকল্পনা, নিরীক্ষণ ও বাজেট প্রনয়নে কর্মীদের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় বাজেট বরাদ্দ দেয়া হবে।

পৌরসভায় গঠিত কমিটি সমুহ তাদের আওতাধীন জেন্ডার বিষয়ক কাজগুলো কিভাবে বাস্তবায়ন করবে এবং জেণ্ডার কমিটি সেই কাজের কতটা পরিবীক্ষণ করবে তা নিয়ে জেণ্ডার কমিটি এর সাথে আলোচনা করবে।

জেণ্ডার কমিটি কাজগুলোর বাস্তবায়ন ও পরিবীক্ষণ নিয়ে আলোচনা করবে। কাজের অগ্রগতি সভার কার্যবিবরণীতে লিপিবদ্ধ করা হবে।

মাসিক ভিত্তিতে জেণ্ডার কমিটি কাজের অগ্রগতির প্রতিবেদন তৈরি করবে এবং এর আলোচনা, সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য TLCC এর সভায় পাঠাবে।

৭। উঠান বৈঠকের আয়োজন করা এবং নারী কাউন্সিলরদের নেতৃত্বে ওয়ার্ড ভিত্তিকর্ যালী অনুষ্ঠিত করা। ত্রৈমাসিক উঠান বৈঠক এবং ওয়ার্ড ভিত্তিকর্ যালীর আয়োজন করা পৌরসভার একটি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব। উঠান বৈঠক ওর্ যালীর জন্য পৌরসভা ও প্রকল্প ব্যবস্থাপনা অফিস প্রয়োজনীয় বাজেট বরাদ্দসহ প্রোগ্রাম প্রণয়ন ও প্রেরণ করবে।র্ যালীতে ব্যবহারের জন্য বার্তা সম্বলিত ষ্টিকার, পোষ্টার, নির্দেশিকা UGIIP-II এর PMO হ'তে পাঠানো হবে। তবে স্থানীয়ভাবে ব্যানার, ফেষ্টুন, প্ল্যাকার্ড ইত্যাদি তৈরী ও ব্যবহারের জন্য বাজেট বরাদ্দ রাখতে হবে।


মেয়র সচেতনতা বৃদ্ধি কার্যক্রমে সহায়তা করার জন্য জেণ্ডার কমিটির সদস্য সচিবকে নিয়োজিত করবেন, যিনি নারী কাউন্সিলরের নেতৃত্বে উঠান বৈঠক,র্ যালী, ইত্যাদি কাজগুলোতে সহায়তা করবে।

জেণ্ডার কমিটি নিয়মিতভাবে খানা বা পরিবার পরিদর্শনের একটি পরিকল্পনা তৈরী করবে এবং সেই অনুযায়ী কমিটির সদস্যরা সামাজিক এবং পরিবেশ বিষয় সচেতনা বৃদ্ধির জন্য খানা বা পরিবার পরিদর্শন করবে। যেমন,
- গৃহবধূ অথবা পরিবারের বয়স্ক নারীকে পৌরকর পরিশোধের তাৎপর্য বিষয়ে উদ্বুদ্ধ করা।
- সুন্দর স্বাস্থ্য এবং পরিচ্ছন্ন পরিবেশ নিশ্চিত করার জন্য প্রচারণা চালানো।
- অন্যান্য প্রাসঙ্গিক বিষয়ে আলোচনা করা ও পরামর্শ দেয়া।
-
সামাজিক ও পরিবেশগত বিষয়ে জেণ্ডার কমিটির্ যালী ও উঠান বৈঠকের একটি বার্ষিক পরিকল্পনা প্রনয়ন করবে এবং নিম্নলিখিত পদক্ষেপ সম ূহ অনুসরণ করে এসকল কর্মকান্ডের ধারাবাহিক আয়োজন করবে।

উঠান বৈঠকের জন্য অনুসরণীয় পদক্ষেপ সম ূহ :
WLCC এর সহায়তায় নারী ওয়ার্ড কাউন্সিলরগণ তাদের আওতাধীন তিনটি ওয়ার্ডে উঠান বৈঠক পরিচালনা করবে।

প্রতি ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে ত্রৈমাসিক ১টি উঠান বৈঠক অনুষ্টিত হবে।
পৌরসভা উঠান বৈঠকের জন্য বাজেট বরাদ্দ করবে।

মহিলা ওয়ার্ড কাউন্সিলর সভা পরিচালনা করবে এবং সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের পুরুষ কাউন্সিলর এতে সহায়তা করবে।

উঠান বৈঠক এক থেকে দেড় ঘন্টা সময়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে।
একটি সভায় দুই অথবা ততোধিক বিষয়ে আলোচনা হতে পারে। যেমন কর আদায় - অবকাঠামো উন্নয়ন; কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা - পরিবেশ - স্বাস্থ্য; দারিদ্র বিমোচন কৌশল - জনগণের অংশগ্রহণ; সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়া-নারীদের অংশগ্রহণ।

উঠান বৈঠক নারী ও পুরুষদের জন্য পৃথকভাবে অনুষ্ঠিত হতে পারে, অথবা প্রয়োজনে উভয় দলের সাথে একই সঙ্গে হতে পারে।

মহিলা ওয়ার্ড কাউন্সিলরগণ সকলের সামনে আলোচ্য বিষয়টি তুলে ধরবে এবং এ বিষয়ে সকলকে আলোচনার সুযোগ দিয়ে একটি সিদ্ধান্তে পে ৗঁছাতে সাহায্য করবে।

আলোচনা অবশ্যই আনন্দময় হতে হবে। নারী ওয়ার্ড কাউন্সিলর অন্যান্যদের অভিজ্ঞতা থেকে উদাহরণ এনে তা অনুসরণ করার জন্য অংশগ্রহণকারীদের উদ্বুদ্ধ করবে।

উঠান বৈঠকের কার্যবিবরণী তৈরী করতে হবে এবং গৃহীত সিদ্ধান্তসমূহ বাস্তবায়নের জন্য WLCC  এর মাধ্যমে পৌরপরিষদে উপস্থাপন।

মেয়র ও পুরুষ কাউন্সিলরগণর্ যালী উদ্বোধনের সময় অথবার্ যালীর শেষে জনসমাবেশে উপস্থিত থাকবেন।
নগর পরিচালন উন্নতিকরণ শাখা (UGIS) পরবর্তীতে উঠান বৈঠকের গৃহীত সিদ্ধান্তগুলো বাস্তবায়িত হচ্ছে কিনা তা পরিবীক্ষণ করবে।
র্
যালী অনুষ্ঠানের জন্য অনুসরণীয় পদক্ষেপ সমুহঃ
WLCC  এর মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট নারী কাউন্সিলরের নেতৃত্বে একটি ওয়ার্ডে বছরে দু'বারর্ যালীর আয়োজন করা হবে।

একটির্ যালি ৮মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবসে হতে হবে।
পৌরসভারর্ যালীর জন্য বাজেট বরাদ্দ দিবে।

একটি ওয়ার্ড ভিত্তিকর্ যালী পরিচালনা করার জন্য নারী কাউন্সিলরকে সার্বিক প্রস্তুতি নিতে হবে।

মহিলা কাউন্সিলর সংশ্লিষ্ট তিনটি ওয়ার্ডে আলাদাভাবের্ যালীর আয়োজন করবে এবংর্ যালীতে ৫০% নারীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করবে।

একটি নির্ধারিত স্থান থেকে নির্দিষ্ট সময়ের্ যালী শুরু হবে এবং দু'তিনটি শাখায় বিভক্ত হয়ে সমগ্র ওয়ার্ড পরিভ্রমণ করবে।র্ যলী শেষে সকলে আবার শুরু করার স্থানে ফিরে আসবে এবং একটি ছোট সভা করার জন্য জমায়েত হবে।

আনুমানিকভাবে সকল অনুশীলন তিন ঘন্টা যাবৎ চলবে (এক ঘন্টা সময় অংশগ্রহণকারী সমবেত হওয়ার জন্য, এক ঘন্টার্ যালীর জন্য, শেষে এক ঘন্টা সমবেত হয়ে সভা করার জন্য)।

এক সপ্তাহ পূর্ব থেকের্ যালী শুরু এবং শেষ করার স্থান,র্ যালীর বার্তা, তারিখ ও সময় জনগণের সামনে প্রচার করতে হবে।
র্
যালীতে লিফলেট ও পোষ্টার ব্যবহার খুবই কার্যকর। জেণ্ডার কমিটি
সভা ওর্ যালীর জন্য বার্তা মনোনয়ন করবে এবং বার্তা সহ ব্যানার, ফেস্টুন, পোস্টার প্রস্তুত করবে।

এগুলো মুদ্রণ, বন্টন ও দেয়ালে নিবদ্ধ করার্ যালী শুরু করার এক সপ্তাহ আগে শেষ করতে হবে। এগুলোর কিছু কিছুর্ যালীতে বন্টন ও প্রদর্শন করা হবে।

এলাকার জনগণকের্ যালীর উপকরণ সমূহ, যেমন পোস্টার তৈরী ও তা দেয়ালে নিবদ্ধ করতে উৎসাহ দিতে হবে।
র্
যালীর প্রতিটি ঘটনা হবে উৎসব মুখর।

লোক সমাগমের জন্যর্ যালীর পূর্বে বাদ্যযন্ত্র বাজানো যেতে পারে।
র্
যালীর প্রতিটি পদক্ষেপের কার্যবিবরণী তৈরী করতে হবে।র্ যালীর বিভিন্ন ছবি তুলে বিষয়বস্তু উল্লেখ করে তা পৌরসভার বুলেটিন বোর্ড এ লাগাতে হবে।

নগর পরিচালন উন্নতি করণ শাখা (UGIS)র্ যালীর সমগ্র প্রক্রিয়া পরিবীক্ষণ করবে।

ওয়ার্ড পর্যায়ে মহিলা ওয়ার্ড কাউন্সিলরের নেতৃত্বে প্রতি তিন মাস অন্তর নারীদের নিয়ে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে, সেখানে আলোচনা করা হবে কিভাবে পৌরসভার কাজে নারীদের অংশগ্রহণ বাড়ানো যায়, কোন কোন ক্ষেত্রে এটার প্রয়োজন এবং কিভাবে তা সম্ভব হবে।

বড় ধরনের জনসমাগমের মাধ্যমের্ যালী অনুষ্ঠিত হবে, যেখানে বার্তা সমুহ আলোচিত হবে।

মেয়র, সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং পৌরসভার কর্মীরার্ যালী শুরুর পূর্বে এবং পরে আলোচনার সময় উপস্থিত থাকবেন।

একটি বার্তা দিয়ের্ যালী আয়োজন করলে তা বেশী কার্যকরী হয়। তবে প্রয়োজনে একাধিক বার্তা যা পরস্পরের সাথে সম্পর্কিত তা দিয়েওর্ যালীর আয়োজন করা যেতে পারে।র্ যালীতে ব্যবহৃত বার্তা সমুহ দিয়ে জেণ্ডার কমিটি সম্ভাব্য ক্ষেত্রে লোকগীতি ও পথনাটকের আয়োজন করতে পারে। এই ধরণের আয়োজনর্ যালীর পরিবর্তে হতে পারে।

মেয়র এবং জেণ্ডার কমিটির চেয়ারপার্সন, সকল সভায় নারী নাগরিক ও নারী কাউন্সিলরদের সক্রিয় অংশগ্রহণ নিশ্চিত করবেন।

মেয়র ও মহিলা কাউন্সিলরগণ পৌরসভার মাসিক সভায় এই ধরনের সচেতনতা কার্যক্রম চলমান রাখার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনা করবেন।

৮।
UGIAP এর জন্য লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা।
- নারী ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং নারী নাগরিকগণকে বিভিন্ন ফোরাম, সভা, উঠান বৈঠক ইত্যাদিতে অন্তর্ভূক্ত করা।
- কর পরিশোধ, কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, স্বাস্থ্য বিষয় নিয়ে আলোচনা এবং দুর্যোগ মোকাবেলার জন্য প্রস্তুতি ইত্যাদি।

-পৌরসভা কর্তৃপক্ষ সতর্ক দৃষ্টি রাখবেন যাতে UGIAP সম্পর্কিত কমিটিগুলিতে নির্দেশিকায় নির্দেশিত সংখ্যক নারী প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত হয়।
- আলোচনায় নারীর অংশগ্রহণ ঠিকমত হচ্ছে কিনা তা মাঝে মাঝে সরেজমিনে পরীক্ষা করতে হবে।
- দুর্যোগ মোকাবেলার জন্য নারীদেরকে প্রস্তুতি মূলক প্রশিক্ষণ প্রদান করতে হবে।


UGIAP বর্ণিত কমিটিসমূহে নারীদের অন্তর্ভূক্তি UGIAP - II এর নির্দেশনা অনুসারে হয়েছে কি না পৌরসভা তা নিশ্চিত করবে।

কমিটিসমূহ সভায় নারীদের সক্রিয় অংশগ্রহণ হচ্ছে কি না তা মাঝে মাঝে সরেজমিনে পরীক্ষা করতে হবে।

মহিলা কাউন্সিলরদের জন্য গঠিত আঞ্চলিক ও কেন্দ্রীয় ফোরামে অন্তর্ভূক্তির মাধ্যমে মহিলা কাউন্সিলর ফোরামকে সক্রিয় করতে হবে।

দূযোর্গ মোকাবেলার জন্য নারীদেরকে প্রস্তুতিমূলক প্রশিক্ষণ প্রদান করা এবং দূযোর্গকালিন সময়ে আশ্রয়কেন্দ্রসমূহে নারী ও প্রসূতি মায়েদের প্রয়োজনীয় উপকরণ সরবরাহসহ নির্দিষ্ট স্থান বরাদ্দ রাখতে হবে। এ বিষয়ে পৌর মেয়র সর্তক দৃষ্টি রাখবে।

৯।
নারীদেরকে পরিকল্পনা ও আলোচনা সভায় অন্তর্ভুক্ত করা।
- সকল সেবা প্রদান প্রক্রিয়ায় নারীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা।
- রক্ষণাবেক্ষণের কাজে নারীদের অন্তভুূর্ক্ত করা।

- পৌর কর্তৃপক্ষ পৌরসভা উন্নয়ন পরিকল্পনা তৈরীর প্রস্তুতি সভায় ও আলোচনা সভায় ৩০% নারীর অংশগ্রহণের দায়িত্ব নেবেন। তারা যাতে সক্রিয় অংশগ্রহণ করে সেজন্য তাদেরকে উদ্বুদ্ধ করবেন এবং রেজুলেশনে তাদের বক্তব্য উদ্ধৃত করবেন।
- সচেতনতাবৃদ্ধি অভিযানে নারীর অংশগ্রহণ বেশী করে নিশ্চিত করতে ওয়ার্ড কাউন্সিলরগন ঝড়পরধষ Social Mobilization এর উপর কাজ করবেন।


মেয়র পৌরসভা পর্যায়ে নারী কাউন্সিলরদের সভায় উপস্ি্থতি, মতামত প্রদানের সুযোগ, এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণে নারীদের মতমতকে মূল্যায়ন করা হচ্ছে কিনা তা নিশ্চিত করবেন।

ওয়ার্ড পর্যায়ে, জেণ্ডার কমিটি নারীদের উপস্থিতি নিশ্চিত করবে, তাদের কথা শুনবে এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণে নারীদের মতামতকে প্রাধান্য দিতে সহায়তা করবে।

সভার কার্যবিবরণীতে নারীদের অংশগ্রহণ সম্পর্কে উল্লেখ থাকতে হবে।

পৌরসভা জনগণের জন্য যে সকল সেবা দিয়ে থাকে জেণ্ডার কমিটি সেগুলো চিহ্নিত করবে।

জনসাধারণের মাঝে কিভাবে সেবাগুলো প্রদান করা হয় সে সম্পর্কে জেণ্ডার কমিটি ধারণা গ্রহণ করবে।

মহিলা কাউন্সিলর এবং ওয়ার্ড পর্যায়ের নারীরা এইসব সেবা গ্রহণ এবং প্রদানে কিভাবে অংশগ্রহণ করতে পারে তা জেণ্ডার কমিটি পর্যালোচনা করবে।

বর্তমান সেবা প্রদান ব্যবস্থাপনা নারীদের চাহিদা পূরন করছে কিনা এবং কিভাবে তাদের চাহিদাগুলো আরো বেশি রকম বিবেচনা করা যায় তা জেণ্ডার কমিটি আলোচনার মাধ্যমে নিশ্চিত করবে।

পৌরসভার সেবা প্রদান ও গ্রহণে নারীদের অংশগ্রহণের দক্ষতা প্রতি তিনমাস অন্তর পর্যালোচনা করতে হবে।

পৌরসভার সচিব ও জেণ্ডার কমিটি প্রতি ছয় মাস অন্তর সচেতনতা বৃদ্ধি কার্যক্রমের ফলাফল পরিবীক্ষণ করবে।
১০।
পৌরসভার ষ্টাফ হিসেবে নারীদেরকে নিয়োগ প্রদান।
- নারী ষ্টাফ ও নারী কাউন্সিলরদের জন্য উপযুক্ত অফিসকক্ষ এবং সংশ্লিষ্ট সুযোগ সুবিধা নিশ্চিতকরণ।

- পৌর কর্তৃপক্ষ সর্বদা সচেষ্ট থাকবেন নারী ষ্টাফদের কোটা পূরণ করতে এবং সরকারী বিধি মোতাবেক নূন্যতম সুবিধা প্রদান নিশ্চিত করতে।
- নারী কাউন্সিলরদের বসার জন্য উপযুক্ত স্থান এবং পানি সরবরাহ, টয়লেট সুবিধা ও পরিবহন সুবিধা ইত্যাদি প্রদানে পৌর কর্তৃপক্ষ সর্বদা সচেষ্ট থাকবেন।


সকল সম্ভাব্য পদে পৌরসভা ম্যানুয়াল বা নির্দেশিকা অনুসরণ করে নারীদের নিয়োগ নিশ্চিত করতে হবে। নিয়োগ প্রক্রিয়ায় নারী যাতে অগ্রাধিকার পায় সে বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে।

নিয়োগ প্রক্রিয়া পরিবীক্ষণ করতে জেণ্ডার কমিটিকে অন্তর্ভূক্ত করতে হবে।

পৌরসভা ভবনে মেয়র মহিলা কাউন্সিলরদের জন্য টেবিল, চেয়ার এবং ডেস্কের ব্যবস্থাসহ মনোরম কর্ম পরিবেশ নিশ্চিত করবেন।

উপযুক্ত কাজের পরিবেশ নারী কর্মীদের কাজে কিভাবে সাহায্য করে সে সম্পর্কে মেয়র পৌরপরিষদ ও পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বুঝিয়ে বলবেন।

মহিলা কাউন্সিলর এবং নারীদের জন্য মেয়র পৌরসভা ভবনে পৃথক টয়লেট সুবিধা এবং বিশ ুদ্ধ পানীয় জল ও পরিবহন সুবিধা নিশ্চিত করবেন।

RECENT NEWS
FEATURED PHOTO

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস ২০১৯ ইং উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন পৌর

বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরন করছেন পৌর মেয়র জনাব মোঃ মহসিন মিয়া

FEATURED VIDEO

Tea Garden, Sreemangal, Bangladesh

BEAUTIFUL PLACE

Sreemangal

is the place of tea gardens, hills and forest areas on...Read more...